Home সারাদেশ বার্তা ইন্দো-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে অনুপ্রবেশকারীর সংখ্যা পশ্চিমবঙ্গেই বেশিঃঅমিত শাহ

ইন্দো-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে অনুপ্রবেশকারীর সংখ্যা পশ্চিমবঙ্গেই বেশিঃঅমিত শাহ

169
0

২০১৪ সাল থেকে ১০ হাজারেরও বেশি অনুপ্রবেশকারী ধরা পড়েছে৷ মঙ্গলবার লোকসভায় এই তথ্য পেশ করতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ইন্দো-বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে হাজার হাজার অনুপ্রবেশকারী ধরা পড়ে৷ এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গেই ধৃতের সংখ্যা ৯,৭০২৷

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রায় লোকসভায় লিখিত প্রত্যুত্তরে জানান, ৩০ জুন পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে এই সংখ্যা ৩৬৯, ২০১৮ সালে এই সংখ্যা ছিল ৯০০, ২০১৭ সালে ৯৯২, ২০১৬ সালে ১৮৭৫, ২০১৫ সালে ৩২৯৬ এবং ২০১৪ সালে ২২৬০৷ তুলনামূলকভাবে ২০১৪-র জানুয়ারি থেকে ২০১৯-এর জুন পর্যন্ত অসমে ৫৯জন ধরা পড়ে৷ তিনি আরও বলেন, কড়া পাহারা থাকলেও অনেকে অনুপ্রবেশ করতে সক্ষম হয়েছে৷

প্রসঙ্গত, চলতি মাসেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, দেশের প্রতিটি কোণ, প্রতিটি ইঞ্চি থেকে অনুপ্রবেশকারীদের খুঁজে বের করা হবে বলে ৷ রাজ্যসভায় তিনি বলেন, অসমে যে এনআরসি, তা অসম অ্যাকর্ডের অংশ৷ দেশের প্রতিটি ইঞ্চিতে যে অনিপ্রবেশকারীরা রয়েছে, তাদের চিহ্নিত করা হবে এবং আন্তর্জাতিক আইনের ভিত্তিতে তাদের বের করে দেওয়া হবে৷

শাহ , এনআরসি লাগু করার ক্ষেত্রে সরকারের অবস্থানও স্পষ্ট করে দেন৷ তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতি এবং সরকারের কাছে ২৫ লক্ষের বেশি এমন আবেদন এসেছে যেখানে বলা হয়েছে কিছু ভারতবাসীকে ভারতের নাগরিক মনে করা হচ্ছে না, এদিকে এনআরসি-তে এমন কিছু নাগরিককে ভারতীয় বলে মনে করা হচ্ছে, যারা বাইরে থেকে এসেছে৷ শাহ আরও বলেন, এই সব আবেদনের ওপর বিচার-বিবেচনা করার জন্য সরকারকে কিছু সময় দেওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টের কাছে অনুরোধ করা হয়েছে৷ অসমে ২০১৯-এর ৩১ জুলাই এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করতে হবে, এমনই জানা গিয়েছে৷

সূত্র: কলকাতা ৭*২৪