Home বিশ্ব বার্তা অস্ট্রেলিয়ায় গুলি করে ১০ হাজার উট হত্যা শুরু, বিশ্বজুড়ে নিন্দা

অস্ট্রেলিয়ায় গুলি করে ১০ হাজার উট হত্যা শুরু, বিশ্বজুড়ে নিন্দা

2651
0

কয়েক দিন ধরেই বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে খবরটা প্রচারিত হচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও প্রচুর লোক শেয়ার করেছেন সেই খবর। আজ থেকে প্রায় ১০ হাজার উট মেরে ফেলার প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ায়। সেখানে ভয়াবহ দাবানলে দগ্ধ হয়ে ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে লক্ষ লক্ষ প্রাণীর। তার পরে উট নিধনের খবরে ক্ষুব্ধ নেট নাগরিকদের একাংশ। দাবানল নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন পুরোপুরি ব্যর্থ বলে এখনও অনেকেই তোপ দাগছেন। তাঁর জনপ্রিয়তা এতটাই তলানিতে যে ক্ষমতায় ফিরতে পারবেন কি না, তা নিয়ে জল্পনাও শুরু হয়ে গিয়েছে।

দাবানলের সঙ্গেই ভয়াবহ খরার আশঙ্কা রয়েছে অস্ট্রেলিয়া জুড়ে। এতগুলো উট একসঙ্গে মারার কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণাঞ্চল খুবই খরাপ্রবণ এলাকা। যে কারণে এ অঞ্চলে পানির খুব সংকট রয়েছে। বন্য এই উটগুলো খুব বেশি করে পানি খেয়ে নিচ্ছে। পানির খোঁজে তাদের বিচরণের কারণে সম্পদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে। এছাড়া মিথেন গ্যাস সৃষ্টির জন্যও দায়ী তারা।

১৮৪০ এর দশকে অস্ট্রেলিয়ায় সর্বপ্রথম উট আনা হয়। এর পরের ছয় দশকে ভারত থেতে ২০ হাজার উট আমদানি করা হয়।

বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ায় বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পরিমাণ বন্য উট রয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছে, আনুমানিক ১০ লাখেরও বেশি উট দেশটির মরু এলাকায় রয়েছে।

উটকে আপদ হিসেবে গণ্য করা হয় কারণ এগুলো পানির উৎসকে দূষিত করে এবং খাবারের জন্য অনেক দূরে চরতে যাওয়ায় স্থানীয় উদ্ভিদও নষ্ট করে।

পরিবেশ অধিদপ্তর বলছে, ঐতিহ্যগতভাবেই স্থানীয়রা উট সংগ্রহ করে সেগুলো বিক্রি করে থাকে। তবে সম্প্রতি শুষ্ক পরিবেশের কারণে জড়ো হওয়া বিশালাকার উটের পাল সামাল দিতে তারা হিমশিম খাচ্ছেন।

আর এ কারণেই “পশু কল্যাণের শর্ত অনুসরণ করে ১০ হাজারের মতো উট মেরে ফেলা হচ্ছে,” এতে বলা হয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here