Home ক্রীড়া বার্তা পাকিস্তানে কোচ-খেলোয়াড়রা যেতে চায় না, সফর অনিশ্চিত : পাপন

পাকিস্তানে কোচ-খেলোয়াড়রা যেতে চায় না, সফর অনিশ্চিত : পাপন

82
0

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) শুধুমাত্র তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য আসন্ন পাকিস্তান সফরে জাতীয় ক্রিকেট দল পাঠাতে রাজি থাকলেও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলতে চাওয়ার কথা জানিয়েছে। আর তাতে ক্ষুব্ধ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) কড়া ভাষায় বিসিবিকে চিঠি পাঠিয়ে তাদের অসম্মতির কথা জানিয়েছিল। এরপর থেকে বিসিবি ও পিসিবি মুখোমুখি অবস্থানে চলে আসে।

এমন পরিস্থিতিতে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এবার চাঞ্চল্যকর এক কথা জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমকে তিনি জানান, নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা না থাকলেও টাইগারদের পাকিস্তান সফর অনিশ্চিত। পাকিস্তান সফরে বেশিরভাগ বিদেশি কোচ ও কিছু খেলোয়াড় যেতে চায় না।

তবে পাকিস্তান সফরে যাওয়ার বিষয়ে বিসিবি সভাপতি ইতিবাচক মন্তব্য করলেও টেস্টের ব্যাপারে তিনি মোটেও তেমনটি করেননি। সুস্পষ্টভাবেই তিনি বলেন, দেশটিতে টি-টোয়েন্টি খেলার পর নিরাপত্তায় তুষ্ট হলে তারপর টেস্ট খেলতে চায় বাংলাদেশ দল। টানা টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট খেলবো না এটা নিশ্চিত। উইন্ডিজের মতো নিরপেক্ষে ভেন্যুতে টেস্ট চাই।

পাপন বলেন, পাকিস্তানে ক্রিকেট ফিরুক সেটা আমরাও চাই। তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আমাদের প্রশ্ন নাই। কিন্তু বদ্ধ পরিস্থিতির ভেতর খেলোয়াড়রা বেশিদিন অবস্থান করতে চাইছে না। কোথাও বের হতে পারবে না, এমন পরিবেশে আর কয়দিন থাকা যায়? অনেকে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও খেলতে যেতে চায় না। অনেকের পরিবার তাদের নিরাপত্তা নিয়ে ভয় পাচ্ছে। আমরা টি-টোয়েন্টি সিরিজে মূল দল পাঠাতে পারবো কি না, সেটাই এখন প্রশ্ন। আমরা কাউকে পাঠাতে জোর করে পাঠাতে চাই না।

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের মাটিতে শুধু টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার সিদ্ধান্তে এখন পর্যন্ত অনড় বিসিবি। নিরাপত্তা পরিদর্শকের সফর সংক্ষিপ্ত করার রিপোর্টের ভিত্তিতেই এমন সিদ্ধান্ত বলে আগেই জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী। বিষয়টি পাকিস্তানকে ক্রিকেট বোর্ডকে বোঝাতে ব্যর্থ হলে সিদ্ধান্ত নেয়ার ভার পড়বে আইসিসির উপর- বিসিবি থেকে এমন ইঙ্গিতই মিলেছে।

বাসসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে বিসিবি প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেছিলেন, এই মুহুর্তে আমরা লম্বা সময় পাকিস্তানে থাকতে চাই না। এ ব্যাপারে আমরা ইতোমধ্যেই তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি এবং এখনো যোগাযোগ হচ্ছে। দেশের মাটিতে ক্রিকেট ফেরাতে আমরা সবসময়ই পাকিস্তানের পদক্ষেপের সঙ্গে আছি। সুতরাং এই মুহুর্তে আমরা শুধুমাত্র টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে সেখানে জাতীয় দল পাঠাতে চাই।

পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান এ প্রসঙ্গে কয়েকদিন আগে বলেন, বিসিবি আমাদের জানিয়েছে তারা পাকিস্তানে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে, কিন্তু টেস্ট খেলতে চাইছে না। আমরা জবাবে কঠোর থেকে বিসিবির কাছে জানতে চেয়েছি, কেনো তারা শুধু টি-টোয়েন্টি খেলার কথা বলছে? এখন আর আমাদের টেস্ট ক্রিকেট অন্য দেশে গিয়ে খেলার উপায় নেই।

তিনি বলেন, আইসিসি আমাদের সিকিউরিটি প্ল্যানকে গ্রিন সিগন্যাল দিয়েছে। শ্রীলঙ্কা দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলছে এই মুহূর্তে। সবকিছু এখন পর্যন্ত ঠিকই আছে। বাংলাদেশের কাছে জানতে চাওয়া যে ঠিক কি কারণে তারা টেস্ট খেলতে চাচ্ছে না। আলোচনা এখনো শেষ হয়ে যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here